ইসলামী আন্দোলন ঢাকা জেলার বিশাল বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত

ইসলামী আন্দোলন ঢাকা জেলার বিশাল বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক,

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা জেলার বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে আঘাত হানার কারণে ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতিকে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় ফ্রান্সের সাথে সকল প্রকার সম্পর্ক ছিন্ন এবং ফ্রান্সের পণ্য বর্জন অব্যাহত রাখতে মুসলিম উম্মাহর প্রতি আহ্বান জানান।
নেতৃবৃন্দ বলেন, ফ্রান্সে মহানবী সা. এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতি ভারতের মোদি সমর্থন দিয়ে ক্ষম হৃদয়ে লবণ ছুড়ে দিয়েছে। এজন্য মোদিও একই দোষে দোষী সাব্যস্ত হয়েছে। এজন্য মোদি সরকারকেও চরম খেসারত দিতে হবে।
বিকেলে দেশব্যাপী ঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশের অংশ হিসেবে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা জেলা শাখা দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জের কালিগঞ্জ জোড়াব্রীজে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন দলের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম। ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় নবী করীম সা. এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা জেলা সেক্রেটারী আলহাজ্ব শাহাদাত হোসাইন। বক্তব্য রাখেন বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব সুলতান আহমাদ খান, ডা. কামরুজ্জামান, হাসমত আলী, মাওলানা মাজহারুল ইসলাম রাশেদী, এইচএম জহিরুল ইসলাম, মাওলানা ইলিয়াস হোসাইন, শ্রমিকনেতা শামীম খান, মুহাম্মদ শাহীন, ছাত্রনেতা রিয়াজুল ইসলাম প্রমুখ।
পরে একটি বিশাল মিছিল জোড়াব্রীজ থেকে কদমতলী চৌরাস্তা প্রদক্ষিণ করে এক সমাবেশে মিলিত হন। মিছিলে হাজার হাজার ঈমানদার জনতা অংশ নেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম বলেন, ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে একটি বহুতল ভবনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে। এর আগে দেশটির একটি ম্যাগাজিনে একই ধরণের ঘটনা ঘটিয়ে বিশ্বের মুসলিমদের আবেগ-অনুভ‚তিতে আঘাত দেওয়া হয়েছে। ফলে পুরো মুসলিম উম্মাহই বিক্ষুব্ধ ও প্রতিবাদ মুখর হয়ে উঠেছে। ফ্রান্সের একটি ভবনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ সা. এর ‘ব্যঙ্গচিত্র’ প্রদর্শনের জন্য দেশটিকে ক্ষমা চাওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
আহমদ আবদুল কাইয়ূম বলেন, বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক নিন্দা জানাতে হবে। ফ্রান্সের সাথে বাংলাদেশের সবরকম কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে। ইসলাম ও রাসূল সা.কে অবমাননার জন্য ফ্যান্সের রাষ্ট্রপতিকে প্রকাশ্যে বিশ্ব মুসলিমের কাছে ক্ষমা প্রার্থণা করতে হবে। অবিলম্বে ওআইসিতে ফ্যান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপন করতে হবে এবং বাংলাদেশে ইসলাম ও মহানবী সা. বিরুদ্ধে কটুক্তি বন্ধে কঠোর শাস্তির আইন প্রণয়ন করতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন




themesads

© All rights reserved © 2020 crimefolder.com
কারিগরি সহযোগীতায়: Creative Zone IT