’যুগদ্রষ্টা’ শেরে বাংলার প্রস্তাবিত দুটি দেশ ও এর ভূগোল

’যুগদ্রষ্টা’ শেরে বাংলার প্রস্তাবিত দুটি দেশ ও এর ভূগোল

সিদ্দিক মাহমুদুর রহমান,

১৯৪০ সালের ২২-২৪ শে মার্চ লাহোরের ইকবাল পার্কে মুসলিম লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এই সম্মেলনে ‘বাংলার বাঘ’ আবুল কাশেম ফজলুল হক ঐতিহাসিক লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন করেন।

ফজলুল হক তার প্রস্তাবে বলেন, “হিন্দু সাম্প্রদায়িকতার বাস্তবতায় হিন্দু মুসলিম একসাথে বসবাস অসম্ভব। সমাধান হচ্ছে, মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে একটি স্বাধীন মুসলিম রাষ্ট্র এবং পূর্বাঞ্চলে বাংলা ও আসাম নিয়ে আরেকটি স্বাধীন মুসলিম রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হবে।”
‘লাহোর প্রস্তাবে’র সাত বৎসর পর ভারতের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের কিছু প্রদেশ এবং পূর্বাঞ্চলের পূর্ব বাংলা প্রদেশটি একসাথে একটি স্বাধীন মুসলিম রাষ্ট্র হিসেবে আত্ম প্রকাশ করলে ফজলুল হক সাহেবের প্রস্তাবের অর্ধেকটা সফল হয়। এর ২৩ বৎসর পর ফজলুল হক সাহেবের সেই প্রস্থাব বাস্তবায়িত হয়।

আজ ভারতের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ একটি মুসলিম রাষ্ট্র পাকিস্তান। অন্যদিকে ভারতের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলে আর একটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাষ্ট্র বাংলাদেশ আজ বিশ্বে বহুল পরিচিত হয়ে উঠেছে!
তবে ফজলুল হক সাহেবের প্রস্তাবের ছোট্ট একটি খুঁত আজও রয়ে গিয়েছে, বাংলাদেশের সাথে আজ আসাম ও ত্রিপুরা রাজ্য যুক্ত নেই!
হয়তো কালের বিবর্তনে সেটাও সফল হবে! কারণ ফজলুল হক সাহেব একজন “যুগদ্রষ্টা” ছিলেন। আমরা তাঁর প্রকৃত মূল্যায়ন করিনি!

লেখক: লেখক, অনুবাদক, সংকলক, প্রাবন্ধিক, গবেষক, ডাকটিকিট ও মুদ্রা সংগ্রাহক। খণ্ডকালীন শিক্ষক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

নিউজটি শেয়ার করুন




themesads

© All rights reserved © 2020 crimefolder.com
কারিগরি সহযোগীতায়: Creative Zone IT