কাশফুলের রাজ্য এখন ঝালকাঠির বিসিক শিল্পনগরী

কাশফুলের রাজ্য এখন ঝালকাঠির বিসিক শিল্পনগরী

চারণ মুসাফির,
ঝালকাঠি।।
যে কেউ মুগ্ধ হতে বাধ্য এমন একটি জায়গার কথা বলছি্। ছবির দেশ বা কবির দেশ বললেও ভুল হবে না। চীনা প্রবাদে বলা আছে হাজার শব্দের চেয়ে বেশি প্রকাশ করা যায় একটি ছবি দিয়ে। তেমনি একটি ছবির সৃষ্টি হয়েছে ঝালকাঠি শহরের পাশে বিসিক শিল্পনগরীতে। ছবিটি জুড়ে চারিদিকে সাদা কাশফুল আর কাশফুল। প্লট আকারের জমিগুলোর মাঝ দিয়ে পরিকল্পিত রাস্তা। কোনোটিতে জমে আছে বর্ষার পানি। একটি প্লটে পানির মধ্যে দাঁড়িয়ে আছে কয়েকটি খেজুর গাছ। দূরে দেখা যায় ইটের ফিল্ডের আকাশচুম্বী লম্বা চুল্লী। শান্ত জলের মধ্যে বেলা গড়ানো নীল আকাশ, খেজুর গাছের মেলে ধরা সবুজ পাখাগুলো, ইটের চুল্লী আর লাল সূর্যের প্রতিচ্ছবি দেখতে এককথায় অনিন্দ্য সুন্দর। আকাশ আর সূর্য কাশফুলের সাথে সারাদিন নানা রঙের খেলায় মেতে ওঠে। দিনের একেক বেলায় তাদের একেক রূপ। শহরের কোলাহল থেকে মুক্ত এই জায়গাটির চারিদিক জুড়ে কেবলই বিশুদ্ধ বাতাসের আনাগোনা। সকালে কেউ কেউ নিয়মিত হাটতে আসেন এখানে। বিকেল হলেই ঘুরতে বেড়োনো মানুষের ঢল নামে। ক্যামেরা হাতে দলে দলে ছেলেরা কিংবা মেয়েরা জড়ো হতে থাকে। ঘুরতে আসা সকল নারী আর শিশুদের সাজগোজেও থাকে উৎসবের আমেজ। কেউ লাল পরী বা সাদা পরী সেজে কাশবনের মধ্যে হারিয়ে যেতেই যেন এসেছে। সবার হাতে হাতে কাশফুলের তোরা। কেউ কাশফুলের ব্যান্ড বানিয়ে মাথায় পরে নেয়। বাংলা ষড় ঋতুর তৃতীয় ঋতু শরৎকালকে যেন এদেশের মানুষের কাছে বাঁচিয়ে রেখেছে সাদা কাশফুলই।

নিউজটি শেয়ার করুন




themesads

© All rights reserved © 2020 crimefolder.com
কারিগরি সহযোগীতায়: Creative Zone IT