এশিয়ার প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে বিরল রেকর্ড শোয়েব মালিকের

এশিয়ার প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে বিরল রেকর্ড শোয়েব মালিকের

তার আগে মাত্র দু’জন ক্রিকেটার এই কৃতিত্ব দেখাতে সক্ষম হয়েছিলেন। তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বিরল এক নজির সৃষ্টি করলেন পাকিস্তানের ৩৮ বছর বয়সী ক্রিকেটার শোয়েব মালিক। বিশ্বের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি।
শোয়েব মালিকের একসময়ের সতীর্থদের অনেকেই অবসর নিয়ে ফেলেছেন, কেউ আবার কোচ তো কেউ নির্বাচক; কিন্তু তিনি এই ৩৮ বছর বয়সেও ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করে চলেছেন। এশিয়ান ক্রিকেটারদের মধ্যে মহেন্দ্র সিং ধোনি, রোহিত শর্মা থেকে শুরু করে বিরাট কোহলি, এমনকি বিশ্বের অনেক বড় বড় ব্যাটসম্যানদের যে রেকর্ড নেই, এবার সেটাই করে দেখালেন পাকিস্তানি এই তারকা ক্রিকেটার।

বিশ্বের তৃতীয় এবং প্রথম এশিয়ান ক্রিকেটার হিসেবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি। এরইমধ্যে টুইট করে নিজের স্বামীর উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন শোয়েবের স্ত্রী, ভারতের টেনিস সুন্দরী সানিয়া মির্জা। রোববার পাকিস্তানের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি আসর ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে খাইবার পাখতুনখাওয়ার হয়ে ৭৪ রানের এক অসাধারণ ইনিংস খেলেন মালিক।
বেলুচিস্তানের বিপক্ষে মাত্র ৪৪ বলে এই ইনিংস খেলেন তিনি। মারেন ৮টি বাউন্ডারি এবং ২টি ছক্কার মার। আর এর মাঝেই অনন্য রেকর্ডটিও গড়েন তিনি। শোয়েব মালিকের এই রেকর্ড নিয়ে এরইমধ্যে টুইট করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা আইসিসি। পরে সেখানে রিটুইট করেন সানিয়া। লেখেন, ‘ধৈর্য, কঠোর পরিশ্রম, ত্যাগ এবং বিশ্বাস। শোয়েব তোমার জন্য গর্বিত।’

শোয়েব মালিকের আগে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে (ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে) ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই টি-টোয়েন্টি পোস্টার বয় ক্রিস গেইল এবং কাইরন পোলার্ড। গেইলের সংগ্রহ যেখানে ১৩,২৯৬ রান, সেখানে দ্বিতীয় স্থানে থাকা পোলার্ডের সংগ্রহ ১০,৩৭০ রান।
টি-২০ ক্রিকেটে ৩৯৫টি ম্যাচে ৩৬৮ ইনিংস খেলে মালিকের সংগ্রহ ১০ হাজার ০২৭ রান। তবে এর মধ্যে মাত্র ২৩৩৫ রান দেশের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে করেছেন তিনি। বাকি রান বিভিন্ন টি-টোয়েন্টি লিগে করেছেন এই পাক ব্যাটসম্যান।

তথ্যসূত্র: জাগো নিউজ।

নিউজটি শেয়ার করুন




themesads

© All rights reserved © 2020 crimefolder.com
কারিগরি সহযোগীতায়: Creative Zone IT